Breaking News
Home / লাইফ-স্টাইল / শুধু মেয়েদেরই কেন? ছোটবেলা থেকেই ছেলেদেরও শেখান এগুলো

শুধু মেয়েদেরই কেন? ছোটবেলা থেকেই ছেলেদেরও শেখান এগুলো

শুধু মেয়েরা নন, ছোটবেলায় অনেক ছেলেও একই ভাবে যৌন নির্যাতনের শিকার হয়। তাই ছোট থেকে তাদেরও শেখান, এমন পরিস্থিতির মোকাবিলা ঠিক কী ভাবে করা প্রয়োজন।

পরিবারে মেয়েদের ঠিক যতটা যত্ন সহকারে অভিভাবকেরা আচার-আচরণ শেখান, বাড়ির ছেলেদের উপরেও এই বিষয়ে ছোট থেকেই সমান গুরুত্ব দিন।

ছেলে হয়ে কাঁদছিস— এমন কথা বাড়ির বড়দের প্রায়ই বলতে শোনা যায়। ছোট থেকে একথা শুনে শুনে শিশু মনে উল্টো প্রভাব পড়ে থাকে। তারা মনে করে, কান্না শুধু মেয়েদের জন্য, ছেলেদের জন্য নয়। এমন ধারণা ঠিক নয়। ছোটদের শেখান, কান্না আবেগের প্রকাশ মাত্র। এটা খুবই স্বাভাবিক।

ছোট থেকেই ছেলেদের একটা ধারণা মনে গেঁথে দেওয়া হয়, সব কিছুর জন্য বাবা-মার থেকে অনুমতি নেওয়ার প্রয়োজন নেই। ওটা মেয়েদের কাজ। এমন ধারণা জন্মানোর পিছনে বাবা-মার অবদান অবশ্য কম নয়। বেশির ভাগ ক্ষেত্রেই দেখা যায়, মেয়েদেরই খুব বেশি শাসনে রাখা হয়। এই ভুলটা করবেন না। মেয়েদের পাশাপাশি, ছেলেদেরও অনুমতি নিতে শেখান।

ছেলে হোক বা মেয়ে, প্রত্যেকেরই উচিত নিজের ঘরটাকে গুছিয়ে রাখা। ছোট থেকেই যদি সন্তানদের এটা শেখানো যায়, তা হলে আর ঘর অগোছালো হয় না।

খাদ্য আমাদের সবচেয়ে প্রয়োজনীয় জৈবিক চাহিদা। নিজের খাদ্যের ব্যবস্থা নিজেকে করাটাও ঠিক তেমনই গুরুত্বপূর্ণ। রান্না করা অবশ্যই শেখাবেন।

নিজেদের খেয়াল নিতে শেখাবেন। কোন অনুষ্ঠানে কোন ধরনের পোশাক পরবে, কী ভাবে নিজেকে সাজিয়ে তুলবে, এটাও জানা জরুরি।

মহিলাদের সম্মান করা খুবই জরুরি। তা অবশ্যই শেখান।

Comments

comments

Check Also

ছুটির দিনে ঘরেই করুন চারটি কাজ, সাফল্য আপনার পায়ের নীচে থাকবে

জন্মের পরেই কি কারও নামের আগে সফল বা ব্যর্থ ট্যাগ লাগিয়ে দেওয়া হয়? উত্তর, অবশ্যই ...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *