Breaking News
Home / স্বাস্থ্য কথা / সকালের নাশতায় ফল

সকালের নাশতায় ফল

সকালে খালি পেটে কী খাবেন এবং কী খাবেন না এ সম্পর্কে বহু ভুল ধারণা প্রচলিত রয়েছে। সকালে খালি পেটে ফল খাওয়া একদম ভালো নয়- এমনটা অনেকেই বলেন।

যদিও বিষয়টি পুরোপুরি সত্য নয়।
কেননা নাস্তা খাবার পর ফল খেলে যে উপকারিতা, তার চাইতে অনেক বেশি উপকার পাবেন আপনি যদি খালি পেটে ফল খান প্রতিদিন। বিশেষ করে জানা ওজন কমাতে আগ্রহী, তাঁদের জন্য তো এটা দারুণ কাজ করে। তবে সব ধরনের ফল সকালে খাওয়া যাবে না। এ ক্ষেত্রে কয়েকটি নিয়ম তুলে ধরা হলো এ লেখায়-

সকালে যা খাবেন, যা এড়িয়ে চলবেন
সকালে খালি পেটে টক-জাতীয় ফল খাবেন না কোনোমতেই। এটা এসিডিটির সমস্যা তৈরি করতে পারে। সকালে খেতে হবে এমন ফল, যেগুলোতে আছে উচ্চমাত্রায় ফাইবার।

সকালে খাবার জন্য আপনি বেছে নিতে পারেন একদম সহজলভ্য কিছু ফল। যেমন কলা, আপেল, পাকা পেঁপে, মিষ্টি বাঙি, শুকনো ফল যেমন কিসমিস-ডুমুর ইত্যাদি ও নানান রকমের বেরি জাতীয় ফল।

টক-জাতীয় কোনো ফল খাবেন না সকালে।
হালকা গরম পানির সঙ্গে মধু, এরপর ফল
সকালে ফল খেতে চাইলে দুটি পদ্ধতি আছে। প্রথমত আপনি দিন শুরু করতে পারেন এক ক্লাস হালকা গরম পানির সাথে মধু মিশিয়ে পান করে। পানির বদলে কুসুম গরম এক কাপ দুধও চলতে পারে মধুর সাথে। এই পানীয় পান করার ১০ মিনিট পর খেতে পারেন নিজের পছন্দের ফলটি।

ফলের নাশতা
আরেকটি উপায় হচ্ছে আপনার পছন্দের নাশতা তৈরি করুন ফল দিয়ে। যেমন দুধ ও কর্নফ্লেক্সের সাথে যোগ করতে পারেন পছন্দের ফল। কিংবা প্যানকেক তৈরি করতে পারেন পছন্দের ফল দিয়ে। কিংবা দুধের সাথে ফল দিয়ে তৈরি করে নিতে পারেন নানান রকম মিল্কশেক। কার্বোহাইড্রেট জাতীয় খাবার বর্জন করে সকালে নাশতা করতে পারেন ফল ও প্রোটিন দিয়ে। যেমন একটি ডিম সেদ্ধ, একটি কলা ও এক গ্লাস দুধ হতে পারে আপনার জন্য দারুণ নাশতা।

ফল দিয়েই শুরু করুন
সকালে দিনটা যদি ফল দিয়ে শুরু করেন, আপনার শরীর ফল থেকে আহরণ করতে পারেন সর্বাধিক পুষ্টি। খালি পেতে ফল খেলে শরীরে ডিটক্সিফিকেশন হয় চমৎকার, সকাল সকাল শরীর পেয়ে যায় প্রয়োজনীয় অ্যান্টি-অক্সিডেন্ট, ভিটামিন ও মিনারেল।

উচ্চ ফাইবার সমৃদ্ধ ফল খেলে আপনার হজমক্ষমতা চমৎকার কাজ করতে শুরু করে। তা ছাড়া এই হাই ফাইবার সমৃদ্ধ খাবার আপনার পেট ভরা রাখে ও সারাদিনই ঘন ঘন খিদে পাওয়া প্রতিরোধ করে। এই ব্যাপারই ওজন কমাতে অত্যন্ত সহায়ক। ভরা পেটে ফল খেতে চাইলে সেটা খাওয়ার কমপক্ষে এক/দেড় ঘণ্টা পরে খাবেন। নাহলে এতে তেমন উপকার পাবেন না।

Comments

comments

Check Also

নিয়মিত হলুদ গুঁড়ো দিয়ে বানানো চা খেলে কী হতে পারে জানেন?

চা তো আমরা সবাই খাই। কেউ লাল চা, তো কেউ দুধ! কিন্তু কখনও হলুদ দিয়ে ...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *