Breaking News
Home / স্বাস্থ্য কথা / সহজ ব্যায়ামে জাপানিদের ওজন নিয়ন্ত্রণ কৌশল

সহজ ব্যায়ামে জাপানিদের ওজন নিয়ন্ত্রণ কৌশল

কখনো ভেবেছেন, জাপানিরা কেন স্থূলকায় হয় না! বিশেষজ্ঞরা বলছেন, জাপানের মানুষ একটি বিশেষ কৌশলে এমন ‘ফিট’ দেহ ধরে রাখে। এর জন্য কিন্তু তাদের শরীরচর্চা কেন্দ্রে গিয়ে ঘাম ঝরাতে হয় না! খাদ্যতালিকায় বিশেষ কোনো খাবারও দরকার পড়ে না।

অতি সহজ কৌশলেই জাপানিরা ওজনটা নিয়ন্ত্রণে রাখে। দেশটির চিকিৎসক ও স্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞরা সবাইকে একটি বিশেষ ব্যায়াম করতে উৎসাহ জোগান। এ কারণে ছোটবেলা থেকেই ওই ব্যায়ামে অভ্যস্ত হয়ে পড়ে তারা। ব্যায়ামটা হলো—
করণীয়

এর জন্য ব্যাপক প্রস্তুতির কিছু নেই। উপকরণও লাগবে না খুব বেশি। দরকার কেবল একটি তোয়ালে আর একটি ইয়োগা ম্যাট। এরপর আটটি ধাপে সেরে ফেলুন জাপানিদের সেই ‘জাদুকরী’ ব্যায়াম।

ধাপ ১ : তোয়ালে ভাঁজ করে সিলিন্ডারের মতো করে গুটিয়ে নিন।

ধাপ ২ : এবার ইয়োগা ম্যাট বিছিয়ে নিন।

ওটার ওপর উপুড় হয়ে শুয়ে পড়ুন।
ধাপ ৩ : এবার গোটানো তোয়ালে পেটের নিচে নাভির সমান্তরালে বসান।

ধাপ ৪ : দুই পা ছড়িয়ে দিন। দুই কাঁধ যত দূর ছড়ায়, দুই পা তত দূর ছড়িয়ে দিন। এই ছড়ানো অবস্থায়ই দুই পায়ের বুড়ো আঙুল একসঙ্গে করুন।

ধাপ ৫ : পায়ের আঙুলগুলো ছড়িয়ে রাখবেন না। এক করে রাখুন। অর্থাৎ মাঝখানে ফাঁকা থাকবে না।

ধাপ ৬ : দুই হাত মাথার পাশ দিয়ে সটান ওপরের দিকে ছড়িয়ে দিন। দুই হাতের কড়ে আঙুল দুটি একে অপরকে স্পর্শ করে থাকবে।

ধাপ ৭ : কিছুই করতে হবে না। ঠিক এই অবস্থায় টানা পাঁচ মিনিট অবস্থান করুন।

ধাপ ৮ : পাঁচ মিনিট পর উঠে পড়ুন। একটু জিরিয়ে নিয়ে একই কাজের জন্য আবারও শুয়ে পড়ুন।

মূলত জাপানের বিখ্যাত চিকিৎসক তোশিকি ফুকিেসাজি মানুষের বাজে অঙ্গভঙ্গি দূর করার কোনো উপায় বের করতে গবেষণা করে যাচ্ছিলেন। টানা ১০ বছরের গবেষণার পর তিনি সেই উপায় বাতলে দেন। তাঁর লেখা বইটি একসময় জাপান এবং এশিয়াতে ৬০ লাখ কপি বিক্রি হয়ে গেল! এ পদ্ধতিতে দৃষ্টিকটু অঙ্গভঙ্গি দূরীকরণ, পিঠ ও কোমরের ব্যথা নিরাময় এবং পেটের পেশি শক্তিশালী করা সম্ভব। আরো বেশ কিছু গবেষণায় বলা হয়েছে, এই পদ্ধতির ব্যাপক চর্চাতেই মূলত জাপানিদের মাঝে স্থূলতার সমস্যা নেই।

–হেলথ সায়েন্স জার্নাল অবলম্বনে

Comments

comments

Check Also

যে ৬টি কারণে মারাত্মক রোগ লিভার সিরোসিস হয়ে থাকে!

লিভার সিরোসিস একটি মারাত্মক ও অনিরাময়যোগ্য রোগ। প্রতিটি মানুষেরই পরিচিত জনের মধ্যে কেউ না কেউ ...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *