Home / স্বাস্থ্য কথা / জলদি রোগা হতে ব্রেকফাস্টে খান মাশরুম

জলদি রোগা হতে ব্রেকফাস্টে খান মাশরুম

ওজন নিয়ন্ত্রণে রাখতে যে স্বাস্থ্যকর ব্রেকফাস্টই মোক্ষম দাওয়াই তা মোটামুটি আমরা জেনে গিয়েছি। স্বাস্থ্যকর ব্রেকফাস্ট করেও কি অফিসে গিয়ে কাজের চাপে কিছুক্ষণ পর খিদে পেয়ে যাচ্ছে? এই সমস্যা দূরে করতে এ বার ব্রেকফাস্টে মাশরুম খাওয়ার পরামর্শ দিচ্ছেন গবেষকরা।

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের মিনেসোটা বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক ও গবেষক জোয়ান স্লেভিন জানাচ্ছেন, মাশরুম পুষ্টি জোগানোর পাশাপাশি অনেক ক্ষণ পেট ভরা রাখতে সাহায্য করে। যার ফলে সারা দিন আমাদের খিদে নিয়ন্ত্রণে থাকে ও ক্যালোরি খাওয়ার প্রবণতা কমে।

বৈজ্ঞানিক গবেষণা অনুযায়ী, পেট ভরা রাখতে ও শরীরের ঘাটতি মেটাতে সবচেয়ে উপকারী উপাদান প্রোটিন। সকাল বেলা অন্যান্য প্রোটিন শরীরের জন্য ভারী হলেও মাশরুম অনেক সহজপাচ্য। অথচ পুষ্টিগুণ প্রাণীজ প্রোটিনের থেকে বেশি। গবেষকরা ১০ দিন ব্রেকফাস্টে প্রাণীজ প্রোটিন ও অ্যাগারিকাস বিসপোরাস মাশরুম (হোয়াইট বাটন মাশরুম) রেখে পুষ্টিগুণ তুলনা করে দেখেছেন প্রাণীজ প্রোটিন থেকে যেখানে শরীর ২৮ গ্রাম সুষম প্রোটিন পেয়ে থাকে, মাশরুম থেকে সেখানে শরীর পায় ২২৬ গ্রাম সুষম প্রোটিন। সেই সঙ্গেই গবেষণায় অংশগ্রহণকারীরা জানিয়েছেন, ব্রেকফাস্টে মাশরুম খেলে তাদের অনেকক্ষণ পর্যন্ত পেট ভরা থাকছে ও খিদে কম পাচ্ছে।

Comments

comments

Check Also

থাইরয়েডের সমস্যা গর্ভাবস্থায় কি জটিলতা সৃষ্টি করে?

প্রশ্নঃ থাইরয়েডের অসুখ সারতে কতদিন লাগে? কী খেলে এই রোগ থেকে মুক্তি লাভ করা যাবে? ...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *